এসএসসি ও সমমানের বোর্ড চ্যালেঞ্জের ফল প্রকাশ

2720
SSC Challenge Result

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার খাতা পুনর্মূল্যায়নের ফল মঙ্গলবার (৩০ জুন) প্রকাশ করা হবে। ফল তৈরির সকল কাজ শেষ হয়েছে। খাতা পরিবর্তিত নম্বর, গ্রেডসহ এ ফলাফল আবেদনকারীর মোবাইল নম্বরে পাঠানো হবে বলে আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ড সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, এ বছর এসএসসি-সমমান পরীক্ষার ফলে রেকর্ডসংখ্যক পুনঃনিরীক্ষণ আবেদন আসে। ফলে সন্তুষ্ট নয় সারাদেশের দুই লাখ ৩৪ হাজার ৪৭১ শিক্ষার্থী। এ কারণে বিভিন্ন বিষয়ের উত্তরপত্র পুনর্মূল্যায়নের জন্য বোর্ড চ্যালেঞ্জ করে মোট চার লাখ ৮১ হাজার ২২২টি বিষয়ের ফলে আপত্তি তুলে আবেদন করে। গত বছর আবেদনকারীর সংখ্যা ছিল এক লাখ ৬৫ হাজার ৬৫৮ জন।

এসএসসি বোর্ড চ্যালেঞ্জ রেজাল্ট

গত ৩১ মে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়। এবার গড় পাসের হার ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ, যা গত বছর ছিল ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ। এ বছর মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে এক লাখ ৩৫ হাজার ৮৯৮ জন, যা গত বছর পেয়েছিল এক লাখ পাঁচ হাজার ৫৯৪ জন। পরীক্ষার ফলে আপত্তি থাকা শিক্ষার্থীদের জন্য গত ১ জুন শুরু হয় পুনঃনিরীক্ষণ আবেদন কার্যক্রম, যা ৭ জুন শেষ হয়।

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণ পদ্ধতি

বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ড থেকে জানা গেছে, এবার ১১ শিক্ষাবোর্ডের অধীনে দুই লাখ ৩৮ হাজার ৪৭১ পরীক্ষার্থী তাদের কাঙ্ক্ষিত ফল না পেয়ে মোট ৪ লাখ ৮১ হাজার ২২২টি বিষয়ে ফল পরিবর্তনের প্রত্যাশায় আপত্তি জানিয়ে আবেদন করে। এরমধ্যে ঢাকা বোর্ডে এক লাখ ৪৬ হাজার ২৬০, বরিশালে ২৩ হাজার ৮৫০, চট্টগ্রামে ৫২ হাজার ২৪৬, দিনাজপুরে ৪০ হাজার ৭৫, রাজশাহীতে ৪৪ হাজার ৬১, সিলেটে ২৩ হাজার ৭৯০, কুমিল্লা বোর্ডে ৩৯ হাজার ৩০৩, ময়মনসিংহে ৩১ হাজার ৩৩১, মাদরাসা বোর্ডে ২৮ হাজার ৪৮৪ এবং কারিগরি বোর্ডে ১৭ হাজার ৫৩৮টি বিষয়ে খাতা পুনঃমূল্যায়নের আবেদন করেছে। যার মধ্যে ঢাকা বোর্ডে আবেদনের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

https://i.imgur.com/sNACfcw.jpg

এস এস সি পুনঃনিরীক্ষণ রেজাল্ট ২০২০ সকল বোর্ড

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের ফলাফল ২০২০ পাওয়া যাবে এখানে

পুনঃনিরীক্ষণ এর ফলাফল জানবেন যেভাবে

পুনঃনিরীক্ষণের ফলাফল মূল পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের দিন থেকে এক মাসের মধ্যে প্রকাশ হয়ে থাকে। ২০২০ সালের এসএসসি পুনঃনিরীক্ষণ এর ফলাফল – জুন প্রকাশ হবে। সকল বোর্ড এর ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর এই লিঙ্ক থেকে জানা যাবে। এছাড়া আবেদনের সময় প্রদত্ত যার যার নিজ নিজ মোবাইল নম্বরেও ফলাফল জানিয়ে দেওয়া হবে।

এসএসসি পুনঃনিরীক্ষণের ফলাফল 2020

১. এসএমএস পদ্ধতিঃ এই পদ্ধতিতে ফলাফল জানার জন্য আপনাকে কিছুই করতে হবে না। ফলাফল প্রকাশের পর ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করার সময় প্রদত্ত আপনার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে (যে কোন অপারেটর এর) সরাসরি এসএমএস এর মাধ্যমে ফলাফল জানিয়ে দেওয়া হবে। তাই ফলাফল দেখার জন্য আপনার কোন ম্যাসেজ পাঠানোর প্রয়োজন নেই।

২. অনলাইন পদ্ধতিঃ এই পদ্ধতিতে আপনি যে বোর্ড থেকে পরীক্ষা দিয়েছিলেন ঐ বোর্ড এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে পিডিএফ আকারে শুধুমাত্র যাদের ফলাফলে পরিবর্তন হবে তাদের তালিকা প্রকাশ করা হবে। আবেদনকারীদের ফলাফল ঢাকা, কুমিল্লা, রাজশাহী, দিনাজপুর, চট্টগ্রাম, যশোর, বরিশাল, সিলেট, ময়মনসিংহ, বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড এবং বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটেও প্রকাশ করা হবে। উক্ত পিডিএফ ফাইলটি ডাউনলোড করে আপনার ফলাফলে কোন পরিবর্তন হয়েছে কিনা জেনে নিতে পারবেন। উল্লেখ্য, এই পদ্ধতিতেও যাদের ফলাফলে কোন পরিবর্তন হয়নি তাদের তালিকা প্রকাশ করা হয়না।

দাখিল পুনঃনিরীক্ষণের ফলাফল – খাতা চ্যানেঞ্জের ফলাফল মাদ্রাসা বোর্ড

মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড অধীন দাখিল পরীক্ষাতেও এবার বিপুল সংখ্যক আবেদন পড়েছে, দাখিল ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের জন্য। দাখিলে ২৮ হাজার ৪৮৪টি খাতা চ্যালেঞ্জের জন্য আবেদন পড়েছে।

কারিগরি পুনঃনিরীক্ষণের ফলাফল – খাতা চ্যানেঞ্জের ফলাফল ভোকেশনাল

কারিগরি শিক্ষাবোর্ড অধীন ভোকেশনাল পরীক্ষাতেও এবার বিপুল সংখ্যক আবেদন পড়েছে, ভোকেশনাল ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের জন্য। ভোকেশনালে ১৭ হাজার ৫৩৭ খাতা চ্যালেঞ্জের জন্য আবেদন পড়েছে।

এসএসসি ফলাফল বোর্ড চ্যালেঞ্জ আবেদনের পোস্ট পড়ে সকল তথ্য পেয়ে যাবেন।আপনি যদি কোনও সমস্যার সম্মুখীন হোন এবং কোনও তথ্য জানতে চান তবে ফেসবুক পেজ ও আমাদের সাইটের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন। আমরা শীঘ্রই আপনাদের জিজ্ঞাসার উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব। আপনার মূল্যবান সময় সহ আমাদের সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

শিক্ষা বোর্ড কর্মকর্তারা জানান, একজন শিক্ষার্থী একাধিক বিষয়ের উত্তরপত্র চ্যালেঞ্জ করে আবেদন করেছে। তার মধ্যে ইংরেজি, গণিত, বিজ্ঞান, রসায়ন, পদার্থ, জীববিজ্ঞান, বাংলায় আবেদন বেশি রয়েছে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক জাগো নিউজকে বলেন, ২০ লাখ শিক্ষার্থীর মধ্যে পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আড়াই শতাংশের মতো আবেদন করেছে। অনেকে ভাবে একটা আবেদন করে দেখি কিছু বাড়ে কি না? অনেকে আবার সিরিয়াসলিই ফল পরিবর্তনের আত্মবিশ্বাস থেকে আবেদন করে। মঙ্গলবার (৩০ জুন) ফল প্রকাশ করা হবে বলে জানান তিনি।