৪১তম বিসিএস বিশেষ হচ্ছে না-পিএসসি সূত্র

225
বিসিএস

সরকারি কলেজগুলোতে শিক্ষক সংকট নিরসনে ও শিক্ষার সার্বিক গুণগত মান উন্নয়নে ৪১তম বিসিএসকে বিশেষ বিসিএস হিসেবে নিয়ে শিক্ষক নিয়োগের চিন্তা করছে সরকার এমনই সংবাদ প্রকাশ হয়েছিল গণমাধ্যমে। তবে পিএসসি সূত্রে জানা গেছে ৪১তম বিসিএস বিশেষ হচ্ছে না।

৪১তম বিসিএসে ২ হাজার ১৩৫ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। বিভিন্ন ক্যাডারের শূন্য পদ অনুযায়ী এ সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে। গত ৯ মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে পিএসসির কাছে শূন্য পদের সংখ্যা জানিয়ে ৪১তম বিসিএসের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের অনুরোধ জানায়।

হাতে দুটি বিসিএস। আরও দুটি বিসিএসের ননক্যাডারের সুপারিশও চূড়ান্ত হয়নি। এ অবস্থায় বিভিন্ন ক্যাডারের শূন্য পদের সংখ্যা জানিয়ে ৪১তম বিসিএস আয়োজনের অনুরোধ জানিয়েছে সরকার। বিভিন্ন বিসিএসের ঝামেলা সামলে কবে নাগাদ নতুন বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা যাবে তা জানাতে পারেননি পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) কর্মকর্তারা।

পিএসসির চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক বলেন, আমরা ৪১তম বিসিএসের চাহিদা পেয়েছি। হাতের কিছু কাজ শেষে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। ৪১তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে নিয়োগ করা হবে ৩২৩ জনকে। পররাষ্ট্র ক্যাডারের সহকারী সচিব পদে ২৫ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। পুলিশ ক্যাডারে সহকারী পুলিশ সুপার পদে নিয়োগ দেওয়া হবে ১০০ জনকে।

বিসিএস আনসার ক্যাডারের সহকারী পরিচালক, সহকারী জেলা কমান্ড্যান্ট ও ব্যাটালিয়ন উপ-অধিনায়ক পদে শূন্য পদ ২৩টি। নিরীক্ষা ও হিসাব ক্যাডারের সহকারী মহাহিসাব রক্ষকের শূন্য পদ ২৫টি। কর ক্যাডারেও নিয়োগ দেওয়া হবে ৬০ জনকে। শুল্ক ও আবগারি ক্যাডারে সহকারী কমিশনারের শূন্য পদ ২৩টি। সমবায় ক্যাডারের সহকারী নিবন্ধকের পদ ৮টি। পরিসংখ্যান কর্মকর্তা পদে ১২ জন, রেলওয়ে পরিবহন ও বাণিজ্যক ক্যাডারের সহকারী ট্রাফিক সুপারিনটেনডেন্ট পদে ১ জন, রেলওয়ে প্রকৌশল ক্যাডারের যন্ত্র প্রকৌশলী ও সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক পদে ৫ জন, সড়ক ও জনপথ ক্যাডারের সহকারী প্রকৌশলী সিভিল ও যান্ত্রিক পদে ২৩ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

এ ছাড়া তথ্য ক্যাডারের সহকারী পরিচালক, তথ্য অফিসার, গবেষণা কর্মকর্তা, সহকারী পরিচালক (অনুষ্ঠান), বার্তা নিয়ন্ত্রক ও বেতার প্রকৌশলী পদে ৪৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল ক্যাডারের সহকারী প্রকৌশলী পদ ৩৬টি, বন ক্যাডারের সহকারী বন সংরক্ষকের ২০টি পদ শূন্য।

সরকারি সাধারণ কলেজের জন্য সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের বিভিন্ন বিষয়ের অধ্যাপক পদে ৮৯২ জন, শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজের জন্য সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের প্রভাষক পদে ১৩ জন, কারিগরি শিক্ষা ক্যাডারের প্রভাষক পদে ১০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

ডাক ক্যাডারের সহকারী পোস্ট মাস্টার জেনারেল পদে ২ জন, মৎস্য ক্যাডারের টেকনোলজিস্ট, চাষবিদ, বায়োলজিস্ট, বায়োমেট্রিশিয়ান, ফিশারিজ টেকনোলজিস্ট, মাইক্রো বায়োলজিস্ট ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা পদে ১৫ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। পশুসম্পদ ক্যাডারের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, থানা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা, হাঁস-মুরগি উন্নয়ন কর্মকর্তা, হাঁস-মুরগি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ও চিড়িয়াখানা কর্মকর্তা পদে ৭৬ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

বিসিএস কৃষি ক্যাডারের কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তার ১৮৯টি পদ শূন্য। বাণিজ্য ক্যাডারের সহকারী নিয়ন্ত্রকের ৪টি, স্বাস্থ্য ক্যাডারের সহকারী সার্জন, ডেন্টাল সার্জনের ১৪০টি পদে জনবল নিয়োগ করা হবে। পরিবার পরিকল্পনা ক্যাডারের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা পদে ৪ জন, খাদ্য ক্যাডারের সহকারী খাদ্য নিয়ন্ত্রক, সহকারী রক্ষণ প্রকৌশলী পদে ৮ জন এবং গণপূর্ত ক্যাডারের সহকারী প্রকৌশলী সিভিল এবং ইএম পদে ৫১ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

……………………………………………………………….

সরকারি, আধা সরকারিসহ স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের শূন্য পদে জনবল নিয়োগের জন্য দ্রুতই ৪১তম বিসিএসের সার্কুলার প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

সংশ্লিষ্ট সূত্র হতে জানা যায়, এই নিয়োগ প্রক্রিয়া আগামী জুন মাস থেকে শুরু হবে। সকল মন্ত্রণালয় ও বিভাগের শূন্য পদের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। এসব পদের মধ্যে ১০ শতাংশ শূন্য পদ রেখে বাকি পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহমেদ জানান, শিক্ষিত বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান তৈরিতে সরকারি সংস্থাগুলোর শূন্য পদে জনবল নিয়োগ একটি চলমান প্রক্রিয়া। সম্প্রতি বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, দপ্তর ও সংস্থায় শূন্য পদের সংখ্যা বেশি। এ শূন্য পদ পূরণের জন্য শূন্য পদের তথ্য এবং পদ পূরণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় কর্মপরিকল্পনা চেয়েছে। সকল তথ্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানোর পরই নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হবে।

তিনি আরও জানান, বর্তমানে সরকারি চাকরিতে ২০ লাখ ৫০ হাজার ৮৬১টি পদের মধ্যে প্রায় তিন লাখ ৯৯ হাজার ৮৯৭টি পদ শূন্য রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় পাঁচ হাজার লোক নিয়োগ হবে সরকারি প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তা পদে, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ৫০ হাজার, ব্যাংকে ২০ হাজার, কৃষি মন্ত্রণালয় ও রেলওয়েতে ৬০ হাজার, স্বাস্থ্য খাতে ৩০ হাজার ও অন্যান্য খাতে ৫০ হাজার নিয়োগ দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ৪০তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে ২০০, পুলিশে ৭২, পররাষ্ট্রে ২৫, করে ২৪, শুল্ক আবগারিতে ৩২ ও শিক্ষা ক্যাডারে প্রায় ৮০০ জনসহ মোট ১ হাজার ৯০৩ জনকে নিয়োগ দেওয়ার কথা রয়েছে। এ পরীক্ষায় পিএসসির ইতিহাসে রেকর্ড পরিমাণ আবেদন পড়েছে, যার সংখ্যা ৪ লাখ ১২ হাজার ৫৩২ জন।