বিসিএস

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস বা বিসিএস। বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস রুলস অনুযায়ী প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার মাধ্যমে প্রথম শ্রেণির গেজেটভুক্ত কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়। ২৭টি ক্যাডারে বাংলাদেশি নাগরিকদের মধ্য থেকে এ জনবল নিয়োগ করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে সাধারণ, কারিগরি ও পেশাগত ক্যাডার। তিন ধাপে ( প্রিলিমিনারি, লিখিত ও মৌখিক) পরীক্ষার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন এই নিয়োগ প্রদানের কাজটি করে। চাকরিপ্রাপ্তদের বলা হয় বিসিএস ক্যাডার। ব্রিটিশ পাবলিক সার্ভিস, পাকিস্তান সিভিল সার্ভিস এর পরিণত রূপ হচ্ছে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস।

40th BCS Circular 2022 Publish Date Bpsc.gov.bd BCS Circular PDF

৪০তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে পিএসসির ওয়েবসাইটে এ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। পিএসসি সূত্রে জানা গেছে, এই বিসিএসের মাধ্যমে মোট ১,৯০৩টি পদে নিয়োগ দেয়া হবে।

পিএসসির চেয়ারম্যান মো. সাদিক সাংবাদিকদের বলেন, ৪০তম বিসিএসে ১ হাজার ৯০৩ জন ক্যাডার নেওয়া হবে। শিক্ষা ক্যাডারে সর্বাধিক ৮৭০টি পদে নিয়োগ দেয়া হবে। এই নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা বিষয়ে সরকারের সর্বশেষ গ্রহণ করা সিদ্ধান্তই গৃহীত হবে।

বিসিএসের আবেদন ৩০ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে ১৫ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত চলবে। সাধারণ ক্যাডারে ৪৬৫টি পদের মধ্যে ২০০টি প্রশাসন ক্যাডার পদ, প্রফেশনাল/টেকনিক্যাল ক্যাডারে ৫৬৮টি পদ এবং শিক্ষা ক্যাডারে ৮৭০টি পদে নিয়োগ দেয়া হবে।

40th BCS Circular 2022 PDF Download bpsc.gov.bd

এই বিসিএসে ১১০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা দিতে হবে। এর মধ্যে সাধারণ ক্যাডারদের জন্য বাংলায় ২০০, ইংরেজিতে ২০০, বাংলাদেশ বিষয়াবলিতে ২০০, আর্ন্তজাতিক বিষয়াবলিতে ১০০, গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতায় ১০০, সাধারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে ১০০ নম্বর এবং মৌখিক পরীক্ষায় ২০০ নম্বর থাকবে।

২০০ নম্বরের একটি লিখিত এমসিকিউ প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার সময় থাকবে ২ ঘণ্টা। এ পরীক্ষায় বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে ৩৫ নম্বর, ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্যে ৩৫, বাংলাদেশ বিষয়াবলি ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলিতে ২০, ভূগোল ( বাংলাদেশ ও বিশ্ব), পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় ১০, সাধারণ বিজ্ঞান ১৫, কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি ১৫, গাণিতিক যুক্তি ১৫, মানসিক দক্ষতায় ১৫, নৈতিকতা মূল্যবোধ ও সুশাসন বিষয়ে ১০ নম্বরের প্রশ্ন থাকবে।

টেকনিক্যাল ক্যাডারদের জন্য বাংলায় ১০০, ইংরেজিতে ২০০, বাংলাদেশ বিষয়াবলিতে ২০০, আর্ন্তজাতিক বিষয়াবলিতে ১০০, গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতায় ১০০, সংশ্লিষ্ট পদ বা সার্ভিসের জন্য প্রাসঙ্গিক বিষয়ে ২০০ নম্বর এবং মৌখিক পরীক্ষায় ২০০ নম্বর থাকবে।

উল্লেখ্য, ৩৯তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষায় আবেদনকৃত মোট ৩৯ হাজার ৯৫৪ জন প্রার্থীর মধ্যে লিখিত পরীক্ষায় সহকারী সার্জন পদে ১৩ হাজার ২১৯ জন এবং সহকারী ডেন্টার সার্জন পদে ৫৩১ জন উত্তীর্ণ হয়েছে। এই বিসিএসে ৪ হাজার ৫৪২ জন সহকারী সার্জন ও ২৫০ জন সহকারী ডেন্টাল সার্জনসহ মোট পাঁচ হাজার চিকিৎসক নেয়া হবে। উত্তীর্ণদের মৌখিক পরীক্ষার সময় খুব দ্রুত ঘোষণা করা হবে।

৪০তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি দেখুন এখানেঃ- 

I hope you are enjoying this article. Thanks for visiting this website.