১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা আগামী মাসে

37
ফলাফল

১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি ও লিখিত পরীক্ষার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ১৯ এপ্রিল (শুক্রবার) সকাল ১০টা থেকে ১১টায় স্কুল ও স্কুল পর্যায়-২ এর প্রিলিমিনারি পরীক্ষা এবং বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত কলেজ পর্যায়ের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া ২৬ জুলাই (শুক্রবার) সকাল ৯টা থেকে ১২টা পর্যন্ত স্কুল ও স্কুল পর্যায়-২ এর লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আর ২৭ জুলাই কলেজ পর্যায়ের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ওয়েবসাইটে আপলোড করে দেয়া হবে এবং এসএমএস পাঠিয়ে প্রার্থীদের এ বিষয়ে জানানো হবে। প্রবেশপত্রে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ভেন্যু ও তারিখ উল্লেখ থাকবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এনটিআরসিএ’র চেয়ারম্যান এস এম আশফাক হুসেন বলেন, ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিমিনারি ও লিখিত পরীক্ষার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। এ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে প্রায় ১০ লাখ আবেদন জমা হয়েছে। গত ২৬ ডিসেম্বর এ আবেদন কার্যক্রম শেষ হয়।

উল্লেখ্য, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের জন্য গত ২৮ নভেম্বর ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। মামলাজনিত কারণে প্রায় এক বছর পর এ পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এনটিআরসিএ। এরপর ৫ ডিসেম্বর থেকে অনলাইনে আবেদন কার্যক্রম শুরু হয়ে ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলে।

১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি আগামী মে মাসের শেষের দিকে প্রকাশ হতে পারে। স্কুল-কলেজ পর্যায়ে প্রিলিমিনারির সময় ঘোষণা করে এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)।

এনটিআরসির সদস্য মো. হুমায়ন কবির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ১৫তম নিবন্ধন পরীক্ষা আয়োজনে সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত পর্যায়ে। ইতোমধ্যে আমরা পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি তৈরি করেছি। আদালতের নির্দেশে প্রতিবছর নিবন্ধন পরীক্ষার আয়োজন করা হবে।

তিনি বলেন, সম্প্রতি আদালতের একটি নির্দেশনা অনুযায়ী যোগদানের বসয়সীমা উল্লেখ করতে বলা হয়। এ কারণে ১৫তম নিবন্ধন পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আগে বয়সের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে। সেখান থেকে শিক্ষকদের যোগদানের বিষয়টি নিশ্চিত করলে পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। মে মাসের শেষের দিকে এ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে। এর দুই মাস পরে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার আয়োজন করা হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

এনটিআরসিএ সূত্রে জানা গেছে, গত ২৩ এপ্রিল ১৪তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। এ পরীক্ষায় ১৯ হাজার ৮৬৩ পরীক্ষার্থী লিখিত পরীক্ষায় পাস করেছেন। ঈদুল ফিতরের পর তাদের মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হবে। ৫০ জনের আলাদা আলাদা ব্যাচ তৈরি করে মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হবে। এরপর ১৪তম নিবন্ধন পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করা হবে।