রোগীর অপারেশন করতে হবে, চিকিৎসককে দ্রুত পৌঁছে দিল শিক্ষার্থী

11
বাংলাদেশ

অপারেশন করতে হবে এমন একজন চিকিৎসককে দ্রুত হাসপাতালে পৌঁছে দিল আন্দোলনকারী এক কিশোর। কিশোরদের এমন দায়িত্ববোধ দেখে রতীতিমতো বিস্ময় প্রকাশ করছেন নেটিজেনরা।

জানা গেছে, জাপান বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালের চেয়ারম্যান সরদার এ নাঈম বৃহস্পতিবার দুপুরে হাসপাতালে যাওয়ার পথে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের কবলে পড়েন। শিক্ষার্থীরা কাগজপত্র দেখে ছেড়ে দেওয়ার সময় জানতে পারে দ্রুত চিকিৎসক নাঈমকে হাসপাতালে পৌঁছতে হবে। এসময় এক শিক্ষার্থীরা নিজে গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে নির্বিঘ্নে হাসপাতালে পৌঁছে দেন চিকিৎসককে।

বিষয়টি নিজেই নিশ্চিত করে সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন ওই চিকিৎসক। তিনি লিখেছেন, আজ দুপুরে আন্দোলনরত ছাত্রদের একজন আমার গাড়ীর বৈধ কাগজপত্র দেখে যখন জানলো আমাকে জাপান বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে পৌঁছতে হবে অপারেশন করার জন্য, তখন সে নিজ উদ্যোগে আমার গাড়িসহ আমাকে নীলক্ষেতের মোড় থেকে আমার হাসপাতালে পৌছে দিয়ে গেল।

ডা. নাঈম বলেন, ওর মুখে প্রত্যয়দীপ্ত কণ্ঠে শুনলাম, ওদের আন্দোলন অন্যায়ের বিরুদ্ধে, অসততার বিরুদ্ধে, সাধারণ মানুষকে কষ্টে ফেলার জন্য নয়। বেঁচে থাকো তোমরা, তোমাদের হাতেই গড়ে উঠবে আমাদের স্বপ্নের সোনার দেশ।

রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীকে হত্যার ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবারও রাজধানীতে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা বিচারের দাবিতে আন্দোলন করছে।