তৃতীয় দিনে জেডিসি পরীক্ষায় অনুপস্থিত ২০ হাজার

10
শিক্ষা সংবাদ

জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার তৃতীয় দিনের আরবী ১ম পত্র পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিল ২০ হাজারেরও বেশি পরীক্ষার্থী। আর অসদুপায় অবলম্বনের কারণে ১২ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে কোথাও শিক্ষক বহিষ্কারের কোন খবর পাওয়া যায় নি।

শনিবার (৪ঠা নভেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা কন্ট্রলরুম থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তি থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

শনিবার জেএসসির কোন পরীক্ষা না থাকলেও জেডিসির আরবি প্রথম পত্র পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষায় ৩ লাখ ৭০ হাজার ৮০৮ জন অংশ নেয়ার কথা থাকলেও অংশ নিয়েছে ৩ লাখ ৪৯ হাজার ৩৯৮ পরীক্ষার্থী। অনুপস্থিতির হার ৫ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এ ছাড়া অসদুপায় অবলম্বন করায় ১২ পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার হয়েছে। দেশের ৭৫৪টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে, চলতি বছরের অষ্টম শ্রেণির জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার প্রথম দিন আটটি সাধারণ ও মাদরাসা বোর্ডে অনুপস্থিত ছিল ৬০ হাজার ৮৯৩ জন। দ্বিতীয় দিনে এ সংখ্যা ৬১ হাজার ৯৮৯ জনে দাঁড়ায়। মাত্র দু’দিনেই অনুপিস্থিতির সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ২২ হাজার।

প্রথমদিন জেএসসিতে বাংলা প্রথম পত্র ও জেডিসিতে কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ এবং দ্বিতীয় দিন জেএসসিতে বাংলা দ্বিতীয় পত্র এবং জেডিসিতে আকাইদ ও ফিকহ বিষয়ের পরীক্ষা হয়। তৃতীয় দিন শুধুমাত্র জেডিসির কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ বিষয়ে পরীক্ষা হয়।

বিগত বছরগুলোতেও দেখা যায়, প্রথম দিনেই পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল অর্ধলাখ। ২০১৩ সালে প্রথমদিন জেএসসি-জেডিসিতে অনুপস্থিত ছিল ৫৯ হাজার ৫১৭ জন, ২০১৪ প্রথম দিন অনুপস্থিত ছিল ৪৬ হাজার, ২০১৫ সালে প্রথম দিন অনুপস্থিত ৪১ হাজার ৮০৯ এবং ২০১৬ সালে প্রথম দিনে ৫৯ হাজার ৬৬১ পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল।