জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে মোট ৪ লাখ ৬৮ হাজার ৫৪০টি আসনের বিপরীতে ৫ লাখ ৬২ হাজার ৬২৮টি আবেদন জমা পড়েছে।  তথ্যটি জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও পরামর্শ দফতরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মো. ফয়জুল করিম। গতকাল বৃহস্পতিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এ তথ্য জানান। উল্লেখ্য, এ ভর্তি কার্যক্রমের প্রাথমিক আবেদন গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে ১৯ সেপ্টেম্বর শেষ হয়। এ মাসের শেষ দিকে চূড়ান্ত মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে এবং ১১ অক্টোবর থেকে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পদ্ধতিঃ 

ভর্তি পরীক্ষা ছাড়াই এসএসসি ও এইচএসসি ফলাফলের ভিত্তিতে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করানো হবে। প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদাভাবে মেধা তালিকা তৈরী করে পরীক্ষার্থীদের পছন্দক্রম অনুযায়ী ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির বিষয় বরাদ্দ দেয়া হবে।

একই প্রতিষ্ঠান/কলেজে একই বিষয়ে দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হলে সেক্ষেওে এ সকল আবেদনকারীর পর্যায়ক্রমে

i) ৪র্থ বিষয়সহ SSC ও HSC পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ এর যথাক্রমে ৪০% ও ৬০% ii) প্রয়োজন হলে SSC ও HSC পরীক্ষার মোট প্রাপ্ত নম্বরের যথাক্রমে ৪০% ও ৬০%

ii) এর পরেও যদি দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হয়, তা হলে যার বয়স কম হবে তাকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

আবেদন কলেজ কর্তৃক নিশ্চিত হলে শিক্ষার্থীর মোবাইলে SMS এর মাধ্যমে জানানো হবে।

বিঃদ্রঃ আবেদন ফরমে যদি কোন ভুল থাকে তবে আবেদনকারী তা Cancel করে নতুন করে আবেদন করতে পারবে। ১ বারের বেশি Cancel করা যাবেনা। কলেজ কর্তৃক আবেদন ফরম নিশ্চিত হলে তা আর Cancel করা যাবে না।

ভর্তি ফরমের সাথে কলেজে যা যা জমা দিতে হবেঃ

আবেদনকারীকে প্রিন্ট করা প্রাথমিক আবেদন ফরমটির নির্ধারিত স্থানে স্বাক্ষর করতে হবে৷ এই আবেদন ফরমের সংগে প্রার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষার সত্যায়িত নম্বরপত্র, রেজিস্ট্রেশন কার্ডের সত্যায়িত কপি ও আবেদন ফি বাবদ ২৫০/- টাকা সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে হবে৷ সংশ্লিষ্ট কলেজ যে সকল প্রাথমিক আবেদন online-এ নিশ্চয়ন করবে সে সকল শিক্ষার্থীদের তাদের মোবাইল নম্বরে এসএমএস এর মাধ্যমে তা জানিয়ে দেয়া হবে৷

উল্লেখ্য, প্রাথমিক আবেদন নিশ্চয়ন ব্যতীত কোন প্রার্থীই ভর্তির যোগ্য বলে বিবেচিত হবে না। কলেজে আবেদন পত্র জমা দেয়ার পরে প্রার্থী তার মোবাইল ফোনে SMS না পেলে বুঝতে হবে যে তার আবেদন ফরম কলেজ কর্তৃক নিশ্চয়ন করা হয়নি। এক্ষেত্রে প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যোগাযোগ করতে হবে।

I hope you are enjoying this article. Thanks for visiting this website.