জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ১ম বর্ষে ভর্তির বিস্তারিত তথ্য

94
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোতে ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ও স্নাতক (সম্মান) প্রফেশনাল কোর্সে ভর্তির জন্য আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে অনলাইনে আবেদন করা যাবে। চলবে ১৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

সোমবার (১৩ আগস্ট) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. হারুন অর রশিদের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় ভর্তি কার্যক্রম শুরু, আসন সংখ্যা, ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু ইত্যাদি বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ও স্নাতক (সম্মান) প্রফেশনাল কোর্সে ভর্তির জন্য অনলাইন আবেদন করা যাবে। চলবে ১৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু হবে ১১ অক্টোবর থেকে এবং ১৫ অক্টোবর থেকে শুরু হবে স্নাতক (সম্মান) প্রফেশনাল কোর্সের ক্লাস।

একই অথবা দু’টি ভিন্ন শিক্ষাবর্ষে কোনো প্রার্থী স্নাতক (সম্মান), স্নাতক (সম্মান) প্রফেশনাল ও স্নাতক (পাস) কোর্সে দ্বৈত ভর্তি হলে তার উভয় ভর্তি বাতিল বলে গণ্য হবে।

এছাড়া ভর্তি কার্যক্রমের বিজ্ঞপ্তি এ মাসের শেষ সপ্তাহে দৈনিক পত্রিকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.nu.ac.bd/admissions) এ প্রকাশ করা হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এসময় সভায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু, প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান, ট্রেজারার অধ্যাপক মো. নোমান উর রশীদ, সব ডিন, রেজিস্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, পরিচালক আইসিটি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ২০১৫/২০১৬ সালের মাধ্যমিক/সমমান এবং ২০১৭/২০১৮ সালের উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে ৪র্থ বিষয় সহ ন্যূনতম জিপিএ ২.০০ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ করতে পারবে। এই আবেদন ফরমটি প্রিন্ট করে ২১/০৯/২০১৭ তারিখের মধ্যে আবেদন ফি বাবদ ২৫০/- টাকা ও প্রার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষার সত্যায়িত নম্বরপত্র, রেজিস্ট্রেশন কার্ডের সত্যায়িত কপিসহ সংশ্লিষ্ট কলেজে জমা দিতে হবে৷ চলুন জেনে নেওয়া যাক ভর্তি সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ সব তথ্যঃ

আবেদন শুরুর তারিখঃ ১ সেপ্টেম্বর (শনিবার) ২০১৮ 

আবেদনের শেষ তারিখঃ ১৯ সেপ্টেম্বর (বুধবার) ২০১৮  

আবেদন ফিঃ ২৫০ টাকা 

আবেদন ফরম প্রিন্ট করে আবেদন ফি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ সংশ্লিষ্ট কলেজে জমা দেওয়ার সময়সীমাঃ 

ভর্তি পদ্ধতিঃ এসএসসি ও এইচএসসি এর জিপিএ এর ভিত্তিতে 

ক্লাস শুরুর তারিখঃ ১১ অক্টোবর (বৃহস্পতিবার) ২০১৮  

আসন সংখ্যাঃ ৩,৯১,০৫৫ 

আবেদনের যোগ্যতাঃ

► শিক্ষার্থী যে কোন শিক্ষা বোর্ড এর যে কোন শাখা থেকে এসএসসি/সমমান ২০১৫/২০১ ৬এবং এইচএসসি/সমমান ২০১৭/২০১৮ সালের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয় সহ নূন্যতম ২ জিপিএ প্রাপ্ত প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবে।

► অন্যান্য শিক্ষা বোর্ড/বিশ্ববিদ্যালয় থেকে SSC ও HSC সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রাথীরা ১ উপরোক্ত শর্ত সাপেক্ষে আবেদন করতে পারবে। বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের HSC সমমান কোর্সসমূহ থেকে i) এইচ.এস.সি. (ভোকেশনাল) ii) এইচ.এস.সি. (বিজনেস্ ম্যানেজমেন্ট) iii) ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা এ ভর্তি কার্যক্রমে আবেদন করতে পারবে।

► প্রার্থীদের উচ্চ মাধ্যমিক/সমমানের পরীক্ষায় পঠিত বিষয়সমূহ থেকে ভর্তি যোগ্য (Eligible) বিষয় নির্ধারণ করা হবে। উক্ত পঠিত বিষয়ে (২০০ নম্বরের) ন্যূনতম গ্রেড পয়েন্ট ৩.০ থাকতে হবে।

► ২০১৫/২০১৬ সালের O-Level পরীক্ষায় তিনটি বিষয়ে ‘বি’ গ্রেডসহ অন্তত ০৪ (চার) টি বিষয়ে উত্তীর্ণ এবং ২০১৭/২০১৮ সালের A- Level পরীক্ষায় একটি বিষয়ে ‘বি’ গ্রেডসহ অন্তত ০২ (দুই) টি বিষয়ে উত্তীর্ণ প্রার্থীরা এ ভর্তি কার্যক্রমে আবেদন করতে পারবে তবে প্রার্থীদের ভর্তি নির্দেশিকার অন্যান্য সকল শর্ত পূরণ করতে হবে। এ সকল প্রার্থীদের ডীন, স্নাতকপূর্ব শিক্ষা বিষয়ক স্কুল, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সরাসরি যোগাযোগ করতে হবে।

► বিদেশী সার্টিফিকেটধারী প্রার্থীদের ক্ষেত্রেও বাংলাদেশ-এ স্বীকৃত যে কোন শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক তাদের অর্জিত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের নম্বর পত্রের সমতা নিরূপণ করা হলে তারাও ভর্তির প্রাথমিক আবেদন করতে পারবে। বিদেশী সার্টিফিকেটধারী প্রার্থীদের আবেদনের ক্ষেত্রে ভর্তি নির্দেশিকার সকল শর্ত পূরণ করতে হবে। এ সকল প্রার্থীদেরকে ডীন, স্নাতকপূর্ব শিক্ষা বিষয়ক স্কুল, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সরাসরি যোগাযোগ করতে হবে।

► আবেদনকারী উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় যে শাখা থেকে উত্তীর্ণ হয়েছে তাকে সেই শাখার জন্য নির্ধারিত ভর্তির প্রাথমিক আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় গার্হস্থ্য অর্থনীতি শাখা থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর মানবিক শাখার আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে।

► শিক্ষার্থী ১টি মাত্র কলেজে আবেদন করতে পারবে।

ভর্তি পদ্ধতিঃ

ভর্তি পরীক্ষা ছাড়াই এসএসসি ও এইচএসসি ফলাফলের ভিত্তিতে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করানো হবে। প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদাভাবে মেধা তালিকা তৈরী করে পরীক্ষার্থীদের পছন্দক্রম অনুযায়ী ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির বিষয় বরাদ্দ দেয়া হবে।

একই প্রতিষ্ঠান/কলেজে একই বিষয়ে দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হলে সেক্ষেওে এ সকল আবেদনকারীর পর্যায়ক্রমে

i) ৪র্থ বিষয়সহ SSC ও HSC পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ এর যথাক্রমে ৪০% ও ৬০% ii) প্রয়োজন হলে SSC ও HSC পরীক্ষার মোট প্রাপ্ত নম্বরের যথাক্রমে ৪০% ও ৬০%

ii) এর পরেও যদি দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হয়, তা হলে যার বয়স কম হবে তাকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

আবেদন কলেজ কর্তৃক নিশ্চিত হলে শিক্ষার্থীর মোবাইলে SMS এর মাধ্যমে জানানো হবে।

বিঃদ্রঃ আবেদন ফরমে যদি কোন ভুল থাকে তবে আবেদনকারী তা Cancel করে নতুন করে আবেদন করতে পারবে। ১ বারের বেশি Cancel করা যাবেনা। কলেজ কর্তৃক আবেদন ফরম নিশ্চিত হলে তা আর Cancel করা যাবে না।

ভর্তি ফরমের সাথে কলেজে যা যা জমা দিতে হবেঃ

আবেদনকারীকে প্রিন্ট করা প্রাথমিক আবেদন ফরমটির নির্ধারিত স্থানে স্বাক্ষর করতে হবে৷ এই আবেদন ফরমের সংগে প্রার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষার সত্যায়িত নম্বরপত্র, রেজিস্ট্রেশন কার্ডের সত্যায়িত কপি ও আবেদন ফি বাবদ ২৫০/- টাকা সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে হবে৷ সংশ্লিষ্ট কলেজ যে সকল প্রাথমিক আবেদন online-এ নিশ্চয়ন করবে সে সকল শিক্ষার্থীদের তাদের মোবাইল নম্বরে এসএমএস এর মাধ্যমে তা জানিয়ে দেয়া হবে৷

উল্লেখ্য, প্রাথমিক আবেদন নিশ্চয়ন ব্যতীত কোন প্রার্থীই ভর্তির যোগ্য বলে বিবেচিত হবে না। কলেজে আবেদন পত্র জমা দেয়ার পরে প্রার্থী তার মোবাইল ফোনে SMS না পেলে বুঝতে হবে যে তার আবেদন ফরম কলেজ কর্তৃক নিশ্চয়ন করা হয়নি। এক্ষেত্রে প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যোগাযোগ করতে হবে।

ফলাফলঃ মেধাতালিকায় যার পয়েন্ট বেশি থাকবে সেই সুযোগ পাবে। ফলাফল কয়েকটি ধাপে প্রকাশিত হবে। যেমনঃ

  • ১ম মেধাতালিকা।
  • ২য় মেধাতালিকা (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে) ও মাইগ্রেসন।
  • কোটা ও ও মাইগ্রেসন এর মেধাতালিকা।
  • রিলিজ স্লিপ এর আবেদন এবং
  • রিলিজ স্লিপ এর মেধাতালিকা।

এসএমএস এর মাধ্যমে ফলাফল জানতে লিখতে হবেঃ

NU<space>ATHN<space>Roll No
এবং পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

এখানে, NU= National University
ATHN= Admission Test Honours
Admission Roll No= অনলাইনে ভর্তির আবেদন ফরমে প্রাপ্ত রোল নম্বর।

  • ভর্তি পরিক্ষার আবেদন ফরমে শিক্ষার্থীর কোন তথ্য অসত্য, ভুল বা অসম্পুর্ণ বলে প্রমানিত হলে তার আবেদন ফরম/চুড়ান্ত ভর্তি বাতিল করার অধিকার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে।
  • এই ভর্তি কার্যক্রমের যে ধারা/নিয়মাবলীর সংশোধন, সংযোজন, পরিবর্তন বা বাতিল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে।
  • একই শিক্ষাবর্ষের কোনপ্রার্থী দ্বৈত ভর্তি হলে তা বাতিল করার অধিকার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে।