কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজে চালু হতে যাচ্ছে অনার্স

23
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

সৈকত নগরী কক্সবাজারে উচ্চস্তরে নারী শিক্ষার প্রধান শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজে প্রথমবারের মতো অনার্স চালু হতে যাচ্ছে চলতি শিক্ষাবর্ষে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে বাংলা ও অর্থনীতি বিভাগে শিক্ষার্থীরা ভর্তি হতে পারবেন।

ভর্তির এই আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে ৫ নভেম্বর (সোমবার) বিকাল ৪টা থেকে, চলবে আগামী ১১ নভেম্বর (রবিবার) রাত ১২টা পর্যন্ত। ইতোমধ্যে যারা বিভিন্ন কলেজে অনার্স সেকশনে ভর্তি হতে পারেননি তারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (ক্লিক করুন) গিয়ে রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। প্রথমিকভাবে বাংলা ও অর্থনীতি বিভাগে ৫০ জন করে শিক্ষার্থী এই কলেজে ভর্তির সুযোগ পাবেন।

পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার যা বাংলাদেশের পর্যটন রাজধানী নামে খ্যাত। এই জেলাটি শিক্ষাদীক্ষায়, বিশেষ করে নারী শিক্ষায় পিছিয়ে থাকা একটি জেলা। কক্সবাজারের অন্যতম রাজনীতিবিদ, সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী জনাব ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে নারীদের জন্য প্রথম কলেজ হিসেবে কক্সবাজার মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৮৬ সালে।

পরবর্তীতে কলেজটি ১৯৯৮ সালে জাতীয়করণের মাধ্যমে সরকারি হয়। বর্তমানে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের দ্বারা পরিচালিত কলেজটি জেলা পর্যায়ের অন্যতম সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। পূর্বে এই কলেজে শুধুমাত্র উচ্চ মাধ্যমিক ও ডিগ্রি পর্যায়ে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হতো। চলতি বছর থেকে অনার্স কার্যক্রম চালু হওয়ায় কলেজটি অনার্স কলেজের মর্যাদা লাভ করেছে। বাংলা ও অর্থনীতির পাশাপাশি রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে অনার্স চালু করার বিষয়টা প্রক্রিয়াধীন আছে।

কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজে অনার্স চালু হওয়ায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে এলাকার সচেতন অভিভাবক মহল এবং শিক্ষানুরাগী জনগণ। তার পাশাপাশি তারা কলেজের অবকাঠামোর আরো উন্নয়ন এবং কলেজে শিক্ষক সংখ্যা আরো বৃদ্ধি করার জন্য প্রয়াজনীয় পদ সৃষ্টির বিষয়ের ওপর জোর দেন।