ইবির ৭০৬ আসন শূন্য, অপেক্ষমাণদের সাক্ষাৎকার ১০ জানুয়ারি

8
শিক্ষা সংবাদ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের মেধাতালিকায় স্থানপ্রাপ্তদের ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি অনুষদের আটটি ইউনিটের ৩৩টি বিভাগের অধীনে দুই হাজার ২৭৫ আসনে মেধাতালিকা থেকে ভর্তি শেষে মোট ৭০৬টি আসন ফাঁকা রয়েছে।

আগামী ১০ জানুয়ারি অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে ভর্তি সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে। আজ শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৩টি বিভাগে দুই হাজার ২৭৫ আসনে এক হাজার ৫৬৯ জন শিক্ষার্থীর ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। ভর্তি শেষে ৭০৬টি আসন শূন্য রয়েছে।

মেধাতালিকার ভর্তি শেষে ধর্মতত্ত্ব অনুষদভুক্ত ‘এ’ ইউনিটে ২৪০টি আসনের মধ্যে ১৪টি আসন শূন্য রয়েছে। এই ইউনিটে তিনটি বিভাগ রয়েছে। তিন বিভাগের মধ্যে দাওয়াহ অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিসে ১৪টি আসন শূন্য রয়েছে।

মানবিক ও সমাজবিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটে ৪২০টি আসন রয়েছে। এর মধ্যে ২৩১টি আসন শূন্য রয়েছে। আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে ৬৯টি, বাংলায় ২৯টি, ইংরেজিতে ৫৯টি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ২৪টি, ফোকলোর স্টাডিসে ৫০টি আসন শূন্য রয়েছে।

একই অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটে ৩৭৫ আসনের মধ্যে ১০৯টি আসন শূন্য রয়েছে। এই ইউনিটের অর্থনীতি বিভাগে ১২, লোকপ্রশাসনে ১২, রাষ্ট্রবিজ্ঞানে ১২, ডেভেলপমেন্ট স্টাডিসে ৮ এবং সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার বিভাগে ৬৫টি আসন শূন্য আছে।

আইন ও শরিয়াহ অনুষদভুক্ত ‘এইচ’ ইউনিটে ২৪০ আসনের মধ্যে ৯৫টি আসন শূন্য আছে। এর মধ্যে আইন বিভাগে আটটি, আইন ও ভূমি ব্যবস্থাপনায় ১২টি এবং আল ফিক্হ অ্যান্ড লিগ্যাল স্টাডিসে ৭৫টি আসন শূন্য রয়েছে।

এদিকে ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদভুক্ত ‘ডি’ ইউনিটে ২৫০ আসনের মধ্যে ৮০টি আসন শূন্য রয়েছে। এর মধ্যে ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগে ১১, বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে সাতটি, ফলিত রসায়ন ও কেমিকৌশলে সাতটি, ফার্মেসিতে পাঁচটি এবং ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যায় একজনও ভর্তি না হওয়ায় ৫০টি আসন শূন্য রয়েছে।

একই অনুষদের ‘ই’ ইউনিটে ২০০ আসনের মধ্যে ৩৯টি আসন শূন্য রয়েছে। এর মধ্যে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে তিনটি, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে তিনটি, ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে তিনটি ও বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ৩০টি আসন শূন্য রয়েছে। একই অনুষদের ‘এফ’ ইউনিটে ৩৯ আসন শূন্য রয়েছে। এর মধ্যে গণিতে তিনটি এবং পরিসংখ্যানে ৩৬টি আসন শূন্য রয়েছে।

ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভুক্ত ‘জি’ ইউনিটে ৪৫০ আসনের মধ্যে ৯৯টি আসন শূন্য রয়েছে। এর মধ্যে ব্যবস্থাপনা বিভাগে ১৯টি, হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগে চারটি, ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগে দুটি, মার্কেটিংয়ে চারটি, হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্টে তিনটি এবং ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টে ৬৭টি আসন শূন্য রয়েছে।

এ ছাড়া ভর্তি সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.iu.ac.bd থেকে জানা যাবে।